শমশেরনগর স্টেশনে পাহাড়িকার ইঞ্জিন বিকল : ৪ ঘন্টা পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক শমশেরনগর স্টেশনে পাহাড়িকার ইঞ্জিন বিকল : ৪ ঘন্টা পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শনিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৩:১০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কুলাউড়ায় বখতুন্নেছা চৌধুরী ডায়াবেটিস সেন্টারে জার্মানীর বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দ্বারা প্রশিক্ষণ ও ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প বড়লেখায় নিসচা’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে র‌্যালি, আলোচনা ও ছাগল বিতরণ আগামি ৭ জানুয়ারি অবাধ ও সুষ্ঠু পরিবেশে নির্বাচন হবে-পরিবেশ ও বনমন্ত্রী নওগাঁ-৬ আসনে ১২ জনের মনোনয়ন দাখিল  ওসমানীনগরে সংবাদ সম্মেলনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মুহিবুর রহমান বর্তমান শিক্ষাব্যবস্থা ও প্রাসঙ্গিক কিছু কথা- মৌলভীবাজার-৪ কমলগঞ্জ- শ্রীমঙ্গল আসনে ৫ জনের মনোনয়নপত্র দাখিল মৌলভীবাজার ৩ আসনে মনোনয়ন জমা দিলেন জিল্লুর রহমান ও এম এ রহিম সিআইপি মৌলভীবাজার ০২- কুলাউড়া আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ১০ প্রার্থী মৌলভীবাজার-১ আসন-আ.লীগ ও জাতীয় পার্টির প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

শমশেরনগর স্টেশনে পাহাড়িকার ইঞ্জিন বিকল : ৪ ঘন্টা পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক

  • বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
প্রতীকি ছবি

কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি:: আখাউড়া-সিলেট রেলপথের মৌলভীবাজারের শমশেরনগর রেলওয়ে স্টেশনে চট্রগ্রামগামী ৭২০ নং আন্তনগর পাহাড়িকা এক্সপেস ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল হয়ে টানা ৪ ঘন্টা ট্রেনটি আটকা পড়ে। বিকল্প একটি ইঞ্জিন আসার পর বিকাল ৪টা ৫ মিনিটে আটকা পড়া পাহাড়িকা এক্সপেষ ট্রেন শমশেরনগর থেকে চট্রগ্রামের উদ্দেম্যে ছেড়ে যায়।

বৃহস্পতিবার (১০সেপ্টেম্ব) দুপুর ১২টায় চট্রগ্রামগামী আন্তনগর পাহাড়িকা এক্সপেস ট্রেন শমশেরনগর স্টেশনে আসার পর ইঞ্জিন বিকল হয়ে আটকা পড়েছিল।

শমশেরনগর স্টেশন সূত্রে জানা যায়, সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্রগ্রাম অভিমূখী ৭২০ নং আন্তনগর পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেন বৃহস্পতিবার দুপুরে শমশেরনগর রেলওয়ে স্টেশনে এসে পৌছে। এখানে ২ মিনিট যাত্রা বিরতির পর ইঞ্জিন বিকল হওয়ার পর ট্রেনটি এখানেই আটকা পড়ে।

এ অবস্থায় চট্রগ্রামগামী যাত্রীরা চরম দুর্ভোগের মাঝে পড়েন। পরে বিকাল ৪টায় আখাউড়া জংশন স্টেশন থেকে একটি বিকল্প ইঞ্জিন আসার পর বিকাল ৪টা ৫ মিনিটে আটকাপড়া আন্তনগর পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনটিকে ট্রেন চট্রগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়।

শমশেরনগর রেলওয়ে স্টেশনের সহকারি মাস্টার নাজমুল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ৭২০ নং চট্রগ্রাম অভিমুখী আন্তনগর পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল হওয়ায় ট্রেনটি এ স্টেশনে ৪ ঘন্টা আটকা ছিল।

রেলওয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্দ্ধতন র্কর্তপক্ষকে অবহিত করলে আখাউড়া জংশন স্টেশন থেকে একটি বিকল্প ইঞ্জিন এসে আটকাপড়া ট্রেনটিকে উদ্ধার করে টেনে নিয়ে যায়। বিকল ইঞ্জিন শমশেরনগর স্টেশনে রয়েছে। তবে এসময়ের মধ্যে অন্যকোন ট্রেন না থাকায় বিঘ্ন ঘটেনি।

পিআরডি/জেএইচজে

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews