দোয়ারাবাজারে আগুনে ভস্মীভূত ৫ দোকান অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি দোয়ারাবাজারে আগুনে ভস্মীভূত ৫ দোকান অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৩:৫২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বড়লেখায় ঢলের পানিতে ডুবে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু স্পেনে যুবলীগ কাতালোনিয়া শাখার উদ্যোগে ঈদ পুনর্মিলনী ও আলোচনা মৌলভীবাজারে বন্যার পানিতে ডুবে ২ জনের মৃত্যু কুলাউড়ায় বন্যা আশ্রয় কেন্দ্র পরিদর্শণ করলেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক বড়লেখায় জেলা প্রশাসকের বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ সিলেটে ৮ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত কুলাউড়ায় লক্ষাধিক মানুষ পানি বন্দি, বাড়ছে পানি, বাড়ছে দুর্ভোগ! দুর্যোগ মোকাবেলায় বিশ্বে বাংলাদেশ রোলমডেল : দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী হাকালুকি হাওরপারে বন্যার অবণতি-বড়লেখায় ২৫২ গ্রাম প্লাবিত, আশ্রয় কেন্দ্রে ২২০ পরিবার, লাখো মানুষ পানিবন্দি মৌলভীবাজারে বন্যা কবলিত ৪৩২ গ্রাম, পানিবন্দি প্রায় ২ লাখ মানুষ

দোয়ারাবাজারে আগুনে ভস্মীভূত ৫ দোকান অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

  • রবিবার, ১১ জুন, ২০২৩

দোয়ারাবাজার (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে অগ্নিকান্ডে ৫টি দোকান পুড়ে ভস্মীভূত। এতে অন্তত অর্ধকোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি সাধিত হয়েছে। শনিবার দিবাগত-রাত ১১ টার দিকে দোয়ারাবাজার উপজেলা সদরের মধ্যবাজারে বিদ্যুৎতের শর্টসার্কিট থেকে আগুন ধরে। হঠাৎ আগুনের লেলিহান শিখা দেখতে পেয়ে মানুষ ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা করলেও ৫টি দোকান আগুনে পুড়ে ভস্মীভূত হয়। ভস্মীভূত হওয়া দোকানগুলো হলো মেসার্স হাসান হার্ডওয়্যার, কাকন বস্ত্রালয়, বিসমিল্লাহ গামের্ন্স, মিসবাহ উদ্দিন মিলনের গুদাম ঘর, তৈমুজ আলীর কাচামালের গুদাম, সজল মিয়ার গুদাম, সুজেল মিয়ার গুদাম ঘর।

মেসার্স হাসান হার্ডওয়্যার এর মালিক আসকর আলী বলেন, আমার টিনের গুদাম ছিলো এছাড়াও নির্মাণ সামগ্রীর বিভিন্ন মাল আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে আমার প্রায় ১০/১২ লাখ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে। কাঁচামাল ও ফল ব্যবসায়ী তৈমুজ আলী বলেন, আমি সিলেট থেকে প্রায় ৪০ হাজার টাকার ফল ও কাঁচামাল রেখেছিলাম গুদামে। সব মাল পুড়ে ছাই হয়েগেছে। এই ব্যবসার উপর আমি নির্ভরশীল। এখন সরকারি সহযোগিতা না পেলে আমার পরিবার পরিজন নিয়ে চলা কষ্টকর হয়ে যাবে।

দোয়ারাবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ দেবদুলাল ধর বলেন, গতরাতে ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় আগুনের বড় ক্ষতি থেকে বাজারকে রক্ষা করা হলেও ৫/৭টি দোকান আগুনে ভস্মীভূত হয়েছে এদিকে দোয়ারাবাজার উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কে জিজ্ঞেসা করা হলে তিনি বলেন আগুন লাগার ব্যাপারে আমি কিছুই জানিনা । এখন চেষ্টা করতেছি প্রয়োজনীয় সরকারি বরাদ্দ সাহায্য সহযোগিতা করবো।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২ - ২০২৪
Theme Customized By BreakingNews