বড়লেখায় করোনামুক্ত হয়ে কাজে ফিরলেন পুলিশ কর্মকর্তা  বড়লেখায় করোনামুক্ত হয়ে কাজে ফিরলেন পুলিশ কর্মকর্তা  – এইবেলা
  1. admin@eibela.net : admin :
বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১২:০৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কমলগঞ্জে বিজয় দিবস উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসনের প্রস্তুতি সভা কমলগঞ্জে পুষ্টি সমন্বয় কমিটির দ্বি-বার্ষিক সভা মানবিক অবদানের স্বীকৃতি পেলেন নিউইয়র্ক পুলিশ কর্মকর্তা বড়লেখার তৌফিক রাজনগরে আন্তর্জাতিক রেটিং দাবা প্রতিযোগিতা ১৫ ডিসেম্বর বিমান বাহিনী ৫০ তম প্রশিক্ষন সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত বড়লেখায় এসএসসিতে ২৩৯ ও দাখিলে ৬ শিক্ষার্থীর জিপিএ-৫ অর্জন মৌলভীবাজারে এক্স ঢাবিয়ান ১৫ সদস্যবিশিষ্ট ডিইউ এক্স-স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন গঠন বড়লেখায় বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ক সমন্বয় সভা কমলগঞ্জে সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের উপশাখার উদ্বোধন কুড়িগ্রামে পা দিয়ে লিখে জিপিএ-৫ পেয়েছে অদম্য মেধাবী মানিক 
বেকারি ভাড়া দেয়া হবে
মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী উপজেলা সদরে সম্পূর্ন চালু অবস্থায় একটি বড় বেকারি (৬ হাজার স্কয়ার ফুট) ভাড়া দেয়া হবে। গ্যাস, বিদ্যুৎসংযোগ, ওভেন ও তান্দুরি আছে।
যোগাযোগ- ০১৮১৯৯৭৮৫৫৫

বড়লেখায় করোনামুক্ত হয়ে কাজে ফিরলেন পুলিশ কর্মকর্তা 

  • সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০

এইবেলা, বড়লেখা ::

বড়লেখা থানার এসআই সুব্রত কুমার দাস। করোনাক্রান্ত হলেও হারাননি মনোবল। তার বিশ্বাস ছিল, তিনি করোনাকে জয় করে আবারও কাজে ফিরবেন। হয়েছেও ঠিক তাই। দীর্ঘ ১৮ দিন করোনার সাথে যুদ্ধ করে সুস্থ হয়ে রোববার দুপুরে আবারও যোগ দিয়েছেন কাজে। এসময় থানার ওসি মো. ইয়াছিনুল হক ও তার সহকর্মীরা তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

জানা গেছে, হঠাৎ সুব্রত কুমার দাসের জ্বর-কাশি দেখা দিলে ২০ জুন তিনি করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। ২৩ জুন তার করোনা পজিটিভ আসে। এরপর থেকে তিনি থানা কোয়ার্টারে আইসোলেশনে ছিলেন। চিকিৎসকদের নির্দেশ মেনে ওষুধ খেয়েছেন। নিয়মিত গরম পানি খেয়েছেন। পাশাপাশি ভিটামিস-সি সমৃদ্ধ ফলমূল খেয়েছেন। এতে তিনি ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে ওঠেন। ৮ জুলাই দ্বিতীয়বার পরীক্ষার জন্য তার নমুনা নেয়া হয়। শনিবার তার করোনা নেগেটিভ আসে। এরপর উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ তাকে ছাড়পত্র দেয়।

করোনাজয়ী পুলিশ কর্মকর্তা সুব্রত কুমার দাস জানান, ‘আমাদের প্রতিনিয়ত মাঠে কাজ করতে হয়। মানুষের সং¯পর্শে যেতে হয়। কখন কিভাবে করোনা সংক্রমিত হয়েছি বুঝতে পারিনি। হঠাৎ জ্বর-কাশি দেখা দেয়ায় নমুনা পরীক্ষা করি। এরপর করোনা পজিটিভ আসে। তবে আমি ঘাবড়ে যাইনি। বিশ্বাস ছিল, আবারও সুস্থ হয়ে কাজে ফিরবো। আমার বিশ্বাসের জয় হয়েছে। আবারও কাজে ফিরতে পেরে ভালো লাগছে।’

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রত্মদ্বীপ বিশ্বাস জানান, করোনাক্রান্ত পুলিশ কর্মকর্তা সুব্রত কুমার দাস করোনামুক্ত হয়েছেন। তাকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।#

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো সংবাদ পড়ুন
সুরমা ব্রিকস্, ঢুলিপাড়া (মৈশাজুরী) কুলাউড়া, মৌলভীবাজার।
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৫ - ২০২০
Theme Customized By BreakingNews