ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৬
Home » জাতীয় » ২০১৮ সালের মাঝে পদ্মা সেতু নির্মিত না হলে আ’লীগ আর ভোটের বাজারে আসবে না

২০১৮ সালের মাঝে পদ্মা সেতু নির্মিত না হলে আ’লীগ আর ভোটের বাজারে আসবে না

……………….কমলগঞ্জে প্রাথমিক ও গণ শিক্ষামন্ত্রী

এইবেলা, কমলগঞ্জ, ১৩ ফেব্রুয়ারি :: প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মো: মোস্তাফিজুর রহমান এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের টাকায় পদ্মা সেতুর কাজ করছেন। ২০১৮ সালের মাঝে পদ্মা সেতু নির্মিত না হলে আওয়ামীলীগ আর ভোটের বাজারে আসবে না। ঝরে পড়াদের ও সুযোগ বঞ্চিতদের পড়াশুনার সুযোগ করে দিতে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে রস্ক প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষার সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে। সাথে সাথে এসব শিক্ষার্থীদের ভোকেশনাল প্রশিক্ষণ নিয়ে চাকুরীর সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে। প্রয়োজনে আরও আনন্দ স্কুল হবে।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে লিখিত পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বরের উপর ভিত্তি করে মৌখিক পরীক্ষার নম্বর মিলিয়ে যোগ্য প্রার্থীকেই সরকারি প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ করা হয়। আমি কমলগঞ্জে রস্কের কার্যক্রমের প্রকৃত চিত্র দেখতে এখানে এসেছি। রস্কের প্রকল্পের মাধ্যমে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা উত্তীর্ণ হওয়া ঝড়ে পড়াদের তিন মাসের ভোকেশনাল প্রশিক্ষণ শেষে শিক্ষার্থীরা কর্ম দক্ষতা অর্জন করে দেশের উন্নয়ন করবে। শিক্ষাক্ষেত্রে বিনিয়োগ একটি আদর্শ বিনিয়োগ।

Exif_JPEG_420

Exif_JPEG_420

আমরা বিশ্বমানের করে বাচ্চাদের তৈরী করতে চাচ্ছি। শুধু শিক্ষার জন্য সরকারের বছরে ৩২ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হয়। সকল প্রকল্পের অপচয় রোধ করতে পারলে সে অর্থে দেশের ব্যাপক উন্নয়ন সম্ভব হবে। রাষ্ট্র পরিচালনায় আওয়ামীলীগের চেয়ে আর ভাল কোন দল বাংলাদেশে নেই। শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পৌনে ১২টায় মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলা অডিটরিয়ামে রিচিং আউট অব স্কুল চিল্ড্রেন-রস্ক-২ প্রকল্পের প্রি-ভোকেশনাল স্কিলস্ প্রশিক্ষণার্থীদের সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ কথাগুলো বলেন।

মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মো: কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রী অ্যাড: মো: মোস্তাফিজুর রহমান এমপি। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, রস্কের প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ড: এম. মিজানুর রহমান, কমলগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক রফিকুর রহমান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহাজালাল, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (সিলেট বিভাগ) তাহমিনা খাতুন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মাসুকুর রহমান সিকদার, কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এম. মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সিদ্দেক আলী, কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. জুয়েল আহমেদ, রহিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইফতেখার আহমেদ বদরুল। অধ্যক্ষ মো. হেলাল উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কারিতাস সিলেট অঞ্চলের রিজিওনাল ডিরেক্টর মি. জন মন্টু পালমা, উপজেলা যুবলীগ সম্পাদক মোশাহীদ আলী, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মো. সানোয়ার হোসেন প্রমুখ।

Exif_JPEG_420

Exif_JPEG_420

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান আরো বলেন, এখন দেশ গড়ার কাজ চলছে। দেশ এগিয়ে চলছে। দেশ থেকে নিরক্ষরতা দুর করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গঠনে সকল মতভেদ ভূলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশাপাশি ঝড়ে পড়াদের জন্য তৈরী স্কুলগুলোতে মান সম্মত পাঠদানে নজরদারী করতে হবে। চা বাগানগুলো আরও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপনের অনুমতিসহ ভবন স্থান করার সুযোগ আছে বলেও প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রী বলেন। এর আগে প্রাথমিক ও গণ শিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান এমপিকে কমলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে ফুলের তোড়া প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে কমলগঞ্জ উপজেলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে একটি শ্রদ্ধাঞ্জলী ও ফুলের তোড়া প্রদান করা হয়। এছাড়া অনুষ্ঠানে প্রধান শিক্ষক সমিতি সহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।

রিপোর্ট- প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ